View other drafts

volume_up

হরতাল হলো কোনো দাবি আদায়ের জন্য বা কোনো ঘটনার প্রতিবাদে সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, দোকানপাট, পরিবহন ইত্যাদি বন্ধ রাখার কর্মসূচি। হরতাল সাধারণত কোনো রাজনৈতিক দল বা সংগঠন আহ্বান করে থাকে।

হরতাল শব্দটি এসেছে গুজরাটি শব্দ “হাড়তাল” থেকে। এর অর্থ হলো “শ্রম বন্ধ”। বাংলায় হরতালকে ধর্মঘটও বলা হয়।

হরতাল বিভিন্ন কারণে ডাকা হতে পারে, যেমন:

  • কোনো রাজনৈতিক দাবি আদায়ের জন্য, যেমন নির্বাচনের সময় ভোট কারচুপির প্রতিবাদে বা সরকারের কোনো সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে।
  • কোনো সামাজিক সমস্যার প্রতিবাদে, যেমন নারী নির্যাতন বা শিশুশ্রমের বিরুদ্ধে।
  • কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগের পর ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যের জন্য।

হরতাল সাধারণত একদিনের হয়, তবে কখনও কখনও দুই বা তিন দিনেরও হয়। হরতালকালীন সময়ে সাধারণত সরকারী ও বেসরকারি অফিস-আদালত বন্ধ থাকে। যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে বা সীমিত থাকে। দোকানপাট, মার্কেট বন্ধ থাকে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকে।

হরতাল একটি শান্তিপূর্ণ আন্দোলন। তবে কখনও কখনও হরতালে সহিংসতা দেখা দেয়। পুলিশ ও হরতালকারীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

বাংলাদেশে হরতাল একটি সাধারণ রাজনৈতিক হাতিয়ার। বিরোধী দলগুলো সরকারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন দাবি আদায়ের জন্য হরতাল ডাকে।

হরতাল একটি কার্যকর রাজনৈতিক হাতিয়ার হতে পারে। তবে হরতালকে অবশ্যই শান্তিপূর্ণভাবে পালন করতে হবে। সহিংসতা হরতালকে ব্যর্থ করে দিতে পারে।