ইসলামী শরীয়তের পরিভাষায়, সুবহে সাদিক থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত সকল প্রকার পানাহার এবং যৌনতা থেকে বিরত থাকাকে রোজা বলে।

রোজার শর্তাবলী:

  • মুসলিম হওয়া: মুসলিম ছাড়া অন্যদের জন্য রোজা ফরজ নয়।
  • বালেগ হওয়া: প্রাপ্তবয়স্ক হওয়া।
  • সুস্থ থাকা: রোগাক্রান্ত ব্যক্তিদের জন্য রোজা রাখা ফরজ নয়।
  • ঋতুস্রাব ও প্রসবের রক্ত থেকে পবিত্র থাকা: মহিলাদের ঋতুস্রাব ও প্রসবের রক্ত থেকে পবিত্র থাকা রোজার জন্য শর্ত।

রোজার ফজিলত:

  • রোজা গুনাহের ক্ষমা লাভের মাধ্যম।
  • রোজা জাহান্নামের আগুন থেকে রক্ষা করে।
  • রোজা ধৈর্য ও সংযম শেখানোর মাধ্যম।
  • রোজা দানশীলতা ও সহানুভূতি বৃদ্ধি করে।

রোজার 3 টি ফরজ:

  • নিয়ত করা: রোজা রাখার পূর্বে রাতে নিয়ত করা।
  • সকল প্রকার পানাহার থেকে বিরত থাকা: সুবহে সাদিক থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত সকল প্রকার খাবার ও পানীয় থেকে বিরত থাকা।
  • যৌনতা থেকে বিরত থাকা: সুবহে সাদিক থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত সকল প্রকার যৌনতা থেকে বিরত থাকা।

রোজার 4 টি শর্ত:

  • মুসলিম হওয়া
  • বালেগ হওয়া
  • অক্ষম না হওয়া
  • ঋতুস্রাব থেকে বিরত থাকা নারী

রোজা পালনের মাধ্যমে একজন মুসলিম আল্লাহর রহমত ও ক্ষমা লাভ করতে পারেন।

Categorized in: