রাসেল ভাইপার (Russell’s viper) কামড়ালে অনেক গুরুতর এবং পটেমুক্ত প্রতিক্রিয়া হতে পারে। রাসেল ভাইপারের বিষ খুব শক্তিশালী এবং মানবদেহে নানা রকম প্রতিক্রিয়া ঘটাতে পারে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য কিছু প্রতিক্রিয়া হল:

  1. ব্যথা এবং ফোলা: কামড়ের স্থানে তীব্র ব্যথা এবং দ্রুত ফোলা শুরু হয়।
  2. রক্তপাত: বিষটি রক্তের জমাট বাধার প্রক্রিয়াকে বাধা দেয়, ফলে শরীরে অভ্যন্তরীণ ও বাহ্যিক রক্তপাত হতে পারে।
  3. নিউরোটক্সিক প্রভাব: বিষটি স্নায়ুতন্ত্রে প্রভাব ফেলে, ফলে মাংসপেশীর দুর্বলতা, শ্বাসকষ্ট এবং কখনও কখনও পক্ষাঘাত হতে পারে।
  4. কিডনির ক্ষতি: রাসেল ভাইপারের বিষ কিডনির কার্যকারিতা নষ্ট করতে পারে, যার ফলে তীব্র কিডনি বিকল হতে পারে।
  5. হেমোলাইটিক এনিমিয়া: বিষটি রক্তের লোহিত কণিকা ধ্বংস করতে পারে, যা হেমোলাইটিক এনিমিয়ার কারণ হতে পারে।

তাত্ক্ষণিক লক্ষণ:

  • কামড়ানোর স্থানে তীব্র ব্যথা, ফোলাভাব এবং লালভাব
  • কামড়ানোর কয়েক মিনিটের মধ্যে মাথা ঘোরা, বমি বমি ভাব এবং বমি
  • ঘাম, দুর্বলতা, এবং কম্পন
  • হৃদস্পন্দন বৃদ্ধি এবং রক্তচাপ কমে যাওয়া
  • শ্বাসকষ্ট

গুরুতর লক্ষণ (কয়েক ঘন্টা পর দেখা দিতে পারে):

  • অভ্যন্তরীণ রক্তক্ষরণ
  • পেশী বিকলতা
  • কিডনি বিকল
  • ফুসফুসের সমস্যা
  • মৃত্যু (চিকিৎসা না করলে)

কিছু ক্ষেত্রে, লক্ষণগুলি কয়েক দিন পর্যন্ত দেখা নাও দিতে পারে।

রাসেল ভাইপার কামড়ানোর পর কি করবেন:

প্রাথমিক পদক্ষেপ

  1. ব্যথিত স্থানটি স্থির রাখুন: ক্ষতিগ্রস্ত অঙ্গটি স্থির রাখার চেষ্টা করুন, যাতে বিষের ছড়িয়ে পড়া কমে যায়।
  2. ক্ষতস্থান পরিষ্কার রাখুন: কোনো ধরনের কাটাছেঁড়া বা দাগ না করে, কামড়ের স্থানটি পরিষ্কার রাখুন।
  3. আক্রান্ত ব্যক্তিকে শান্ত রাখুন: আক্রান্ত ব্যক্তিকে শান্ত এবং স্থির রাখতে চেষ্টা করুন, কারণ উদ্বেগ বিষের দ্রুত ছড়িয়ে পড়া বাড়িয়ে দিতে পারে।
  4. দ্রুত চিকিৎসা নিন: যত তাড়াতাড়ি সম্ভব নিকটস্থ হাসপাতাল বা চিকিৎসাকেন্দ্রে পৌঁছান।
  5. তৎক্ষণই চিকিৎসা সহায়তা নিন।
  6. কামড়ানো স্থানে কাটা বা চোঁচানো এড়িয়ে চলুন।
  7. গহনা বা আঁটসাঁট পোশাক খুলে ফেলুন যা ফুলে যাওয়া বন্ধ করতে পারে।
  8. ক্যাফেইন এবং অ্যালকোহল এড়িয়ে চলুন।

চিকিৎসা

রাসেল ভাইপার কামড়ানোর পর জরুরী ভিত্তিতে চিকিৎসা প্রয়োজন। সাধারণত চিকিৎসা পদ্ধতিতে সাপের বিষের প্রতিশেধক (antivenom) ব্যবহার করা হয়। অন্যান্য সাপের কামড়ের মত রাসেল ভাইপারের কামড়েও প্রথমে নিকটবর্তী চিকিৎসাকেন্দ্রে দ্রুত পৌঁছানো এবং বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের পরামর্শ গ্রহণ করা জরুরি।

মনে রাখবেন:

  • সাপে কামড়ালে সাপটি মেরে ফেলবেন না।
  • সাপের প্রজাতি চিহ্নিত করার চেষ্টা করবেন না কারণ এটি বিপজ্জনক হতে পারে।
  • ঐতিহ্যবাহী চিকিৎসা এড়িয়ে চলুন এবং বিষ প্রতিষেধক ব্যবহার করবেন না যদি না একজন ডাক্তার দ্বারা নির্দেশিত হয়।

রাসেল ভাইপার কামড়ানোর ক্ষেত্রে দ্রুত এবং কার্যকর চিকিৎসা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাই যে কোনো ধরনের সাপের কামড়ের ক্ষেত্রে সর্বদা সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত।