বদ্ধ অর্থনীতি হল এমন একটি অর্থনীতি যেটির বাইরের অর্থনীতির সাথে কোন বাণিজ্য কার্যকলাপ নেই। বন্ধ অর্থনীতি সম্পূর্ণ স্বয়ংসম্পূর্ণ। এর মানে দেশে কোনো আমদানি আসে না এবং কোনো রপ্তানি দেশ ছেড়ে যায় না। অন্য কথায়, একটি বন্ধ অর্থনীতি এমন একটি যা বাইরের সাথে তাদের ব্যবসা অদলবদল করে না।

বদ্ধ অর্থনীতির কিছু উদাহরণ হল:

  • উত্তর কোরিয়া
  • ইরান
  • ভেনেজুয়েলা
  • লাইবেরিয়া
  • সিয়েরা লিওন

বদ্ধ অর্থনীতির কিছু সুবিধা হল:

  • এটি সরকারের জন্য অর্থনৈতিক নীতি পরিচালনা করা সহজ করে তোলে।
  • এটি দেশকে বিদেশী নির্ভরতা থেকে মুক্ত করে।
  • এটি দেশীয় শিল্পকে রক্ষা করতে সাহায্য করে।

বদ্ধ অর্থনীতির কিছু অসুবিধা হল:

  • এটি দেশকে বিশ্ব অর্থনীতি থেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলে।
  • এটি দেশকে বিদেশী প্রযুক্তি এবং জ্ঞান থেকে বিরত রাখে।
  • এটি দেশীয় পণ্য এবং পরিষেবাগুলিকে বিশ্ববাজারে প্রতিযোগিতা করতে অসুবিধা করে তোলে।

বাংলাদেশে বদ্ধ অর্থনীতি নেই। বাংলাদেশ একটি উন্মুক্ত অর্থনীতি, যার অর্থ দেশটি বাইরের অর্থনীতির সাথে বাণিজ্য করে। বাংলাদেশ আমদানি করে পণ্য এবং পরিষেবা, এবং রপ্তানি করে পণ্য এবং পরিষেবা।

বাংলাদেশের জন্য বদ্ধ অর্থনীতি থাকার কিছু সুবিধা থাকতে পারে, যেমন অর্থনৈতিক নীতি পরিচালনা করা সহজ করা এবং দেশীয় শিল্পকে রক্ষা করা। তবে, এর অনেক অসুবিধাও থাকবে, যেমন দেশকে বিশ্ব অর্থনীতি থেকে বিচ্ছিন্ন করা এবং দেশীয় পণ্য এবং পরিষেবাগুলিকে বিশ্ববাজারে প্রতিযোগিতা করতে অসুবিধা করা।