ফারাও ছিল প্রাচীন মিশরের রাজাদের উপাধি, যা প্রায় 3,000 বছর ধরে 26 টি রাজবংশ জুড়ে বিদ্যমান ছিল।

উৎপত্তি:

  • মিশরীয় ভাষায়, ফারাওকে “পের-আ” বলা হত, যার অর্থ “বড় ঘর”।
  • এটি সম্ভবত রাজার প্রাসাদের উল্লেখ করে, যা রাষ্ট্রের কেন্দ্রবিন্দু ছিল।
  • গ্রীকরা এই শব্দটি “ফারাও” হিসাবে গ্রহণ করে এবং এটি পশ্চিমা ভাষায় ব্যবহৃত হয়।

গুরুত্ব:

  • ফারাওকে মিশরের ঈশ্বর রা দেবতার পুত্র হিসাবে বিশ্বাস করা হত।
  • তিনি রাষ্ট্রের ধর্মীয় এবং রাজনৈতিক নেতা ছিলেন।
  • ফারাও আইন প্রণয়ন, কর সংগ্রহ এবং সেনাবাহিনী নিয়ন্ত্রণ করেছিলেন।
  • তিনি মন্দির নির্মাণ এবং ধর্মীয় অনুষ্ঠানের তত্ত্বাবধান করেছিলেন।
  • মিশরীয়রা বিশ্বাস করত যে ফারাও মৃত্যুর পর দেবতাদের সাথে যোগদান করেন।

মুকুট এবং পোশাক:

  • ফারাও বিভিন্ন ধরণের মুকুট পরতেন, যার প্রত্যেকটির বিশেষ তাৎপর্য ছিল।
  • সবচেয়ে বিখ্যাত মুকুট ছিল “ডবল ক্রাউন”, যা উপর মিশরের উত্তর এবং দক্ষিণ রাজ্যকে একত্রিত করেছিল।
  • ফারাওও বিশেষ পোশাক পরতেন যা তাদের ঐশ্বরিক মর্যাদা নির্দেশ করেছিল।

স্থাপত্য এবং ভাস্কর্য:

  • ফারাওরা পিরামিড, মন্দির এবং সমাধি সহ মহান স্থাপত্য নির্মাণ করেছিলেন।
  • এই স্মৃতিস্তম্ভগুলি তাদের শক্তি এবং ঈশ্বরের সাথে তাদের সংযোগ প্রদর্শন করে।
  • ফারাওদের মূর্তিও তৈরি করা হয়েছিল, যা প্রায়শই তাদেরকে শক্তিশালী এবং মহান দেবতাদের মতো চিত্রিত করা হত।

বিজ্ঞান:

  • প্রাচীন মিশরীয়রা জ্যোতির্বিদ্যা, গণিত এবং ঔষধে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি অর্জন করেছিল।
  • ফারাওরা এই জ্ঞানকে সমর্থন করেছিলেন এবং এটিকে স্মৃতিস্তম্ভ, মন্দির এবং অন্যান্য নির্মাণে ব্যবহার করেছিলেন।

উত্তরাধিকার:

  • ফারাওদের শাসনকাল মিশরীয় সংস্কৃতি এবং সভ্যতার সোনালী যুগ হিসাবে বিবেচিত হয়।
  • তাদের পিরামিড, মন্দির এবং অন্যান্য নির্মাণ আজও বিস্ময়কর।
  • ফারাওরা মিশরীয় ইতিহাসে একটি স্থায়ী উত্তরাধিকার রেখে গেছেন।

Categorized in: