ইংল্যান্ডের গৌরবময় বিপ্লব ১৬৮৮ সালে সংঘটিত হয়েছিল।

এই বিপ্লবের মাধ্যমে রাজা দ্বিতীয় জেমস (স্কটল্যান্ডের সপ্তম জেমস) কে উৎখাত করে ইউনিয়ন অফ ইংল্যান্ডের সংসদের সমর্থনে নেদারল্যান্ডসের স্ট্যাডিথার উইলিয়াম তৃতীয়, অরেঞ্জের রাজপুত্র ও তার স্ত্রী মেরি সিংহাসনে বসানো হয়।

এই বিপ্লব ইংল্যান্ডের ইতিহাসে একটি গুরুত্বপূর্ণ মোড় ছিল কারণ এটি সংসদের ক্ষমতা বৃদ্ধি করে এবং রাজতন্ত্রের ক্ষমতা সীমাবদ্ধ করে।

গৌরবময় বিপ্লবের কিছু গুরুত্বপূর্ণ ফলাফল:

  • বিল অফ রাইটস: এই আইনটি সংসদের ক্ষমতা ও নাগরিকদের অধিকার প্রতিষ্ঠা করে।
  • সীমাবদ্ধ রাজতন্ত্র: রাজার ক্ষমতা সংসদের দ্বারা সীমাবদ্ধ করা হয়।
  • সংসদের সার্বভৌমত্ব: সংসদকে আইন প্রণয়ন ও কর আরোপের একমাত্র কর্তৃপক্ষ হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়।
  • ধর্মীয় সহনশীলতা: প্রোটেস্ট্যান্ট ও ক্যাথলিক উভয় ধর্মের জন্যই সহনশীলতা প্রতিষ্ঠিত হয়।

গৌরবময় বিপ্লব আধুনিক গণতন্ত্রের বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এবং আজও এর প্রভাব অনুভূত হয়।

Categorized in: