XD (😆) হলো একটি ইমোটিকন। এই ইমোটিকনে দুটি চোখ বন্ধ করে মুখ খুলে হাসার ইঙ্গিত দেয়। অর্থাৎ, আপনি যদি চোখ বন্ধ করে মুখ খুলে হাসতে থাকেন তাহলে ওই হাসিকে XD ইমোটিকন দ্বারা বোঝানো যাবে। কারণ এটি বেশ সহজ, আকর্ষণীয় এবং শব্দের একটি ভাল নির্বাচন। Assignment করতে গিয়ে, আপনার বন্ধুকে চমকে দিতে পারেন, এই বলে যে আপনার আগেই কমপ্লিট XD!!

সোশ্যাল মিডিয়াতে চ্যাট করার সময় ওই হাসি বোঝানোর জন্য XD ইমোটিকন ব্যবহার করতে পারেন। কখনো কখনো 😆 ইমোটিকন ব্যবহার করতে না পারলে XD লিখে দিয়ে বোঝানো হয়। অর্থাৎ আপনি দুটি চোখ বন্ধ করে মুখ খুলে হাসছেন।

  • X এর মানে হলো দুটি চোখ বন্ধ অবস্থা।
  • বড় হাতের D এর মাধ্যমে খোলা মুখকে বোঝানো হয়েছে।
xD means I laugh so hard that I closed my eyes and laugh
xD means I laugh so hard that I closed my eyes and laugh

XD কখন ব্যবহার করা যাবে?

XD সাধারণত ইন্টারনেটে কথপোকথনে ব্যবহার করা হয়। এটি LOL হাসির প্রতীক প্রতিস্থাপন হিসাবে ব্যবহার করা যেতে পারে।

ইন্টারনেটে কোনো জোক্স, মজার, হাসির কিছু কথোপথনে নিজের হাসি বোঝানোর জন্য XD ব্যবহার করা হয়।

কোনো গভীর আলোচনায় XD ব্যবহার করা যায়না।

একটি মেয়ে XD লিখেছে, এর মানে কি?

XD (😆) যা একটি ইমোটিকন। এই ইমোটিকন এর পরিবর্তে XD লিখেও ওই ইমোটিকনকে বোঝানো হয়।

X এর অর্থ হলো দুটি চোখ বন্ধ এবং D এর অর্থ হলো মুখ খোলা।

তাই যখন কেউ ইমোটিকন এর পরিবর্তে XD লিখবে, এর অর্থ হলো উনি চোখ বন্ধ এবং মুখ খোলা অবস্থায় হাসছেন।

XD এর সুবিধা কি?

এখানে XD ব্যবহারের কিছু সুবিধা রয়েছেঃ

  • আপনার আবেগ এবং অভিব্যক্তি প্রদর্শন করা খুব সহজ।
  • আপনার অনুভূতি প্রকাশ করতে কম সময় লাগে।
  • সবাই এটি জানে কারণ এটি সর্বত্র ব্যবহৃত হয়।
  • এটি একটি আকর্ষণীয় শব্দ।
  • XD হল সবচেয়ে জনপ্রিয় শব্দ যা সুখ বা হাসির অনুভূতি দেখাতে ব্যবহৃত হয়।

আপনি কিভাবে XD লিখবেন?

xD অথবা XD এই দুটি ভাবেই লেখা যেতে পারে।

অর্থাৎ আপনি X কে ছোট হাতের অথবা বড়হাতের যেকোনো ভাবে লিখতে পারেন কিন্তু D সর্বদা বড় হাতের লিখতে হবে।

বড় হাতের D মুখ খোলা কে বোঝানো হয়েছে।

এখানে XD-এর কয়েকটি উদাহরণ রয়েছে:

  • “LMAO XD, এটি হাস্যকর।”
  • “ওয়াও এক্সডি আমি এটা বিশ্বাস করতে পারছি না।”
  • “আপনি কি এই সুপার ফানি ভিডিওটি দেখেছেন? XD”
  • “এক্সডি ঠিক আছে, আপনি আমাকে সেই সময় ভাল করেছিলেন।”

Tagged in: