জিহাদ শব্দের অর্থ কি ? (বাংলা, ইংরেজি এবং আরবি)

জিহাদ শব্দের অর্থ কিঃ ইসলামী শরীয়তে খুবই সুন্দর একটি নাম হচ্ছে জিহাদ। জিহাদ অর্থ টি গুরুত্বপূর্ণ তাৎপর্য বহন করে। জিহাদ শব্দের অর্থ হচ্ছে সংগ্রাম। অর্থাৎ নির্দিষ্ট উদ্দেশ্য লাভের জন্য সমস্ত শক্তি নিয়োগ করাকে বোঝানো হয়ে থাকে।

জিহাদ শব্দের আভিধানিক অর্থ হচ্ছে পরিশ্রম, সাধনা, কষ্ট চেষ্টা ইত্যাদি। যারা মুসলমান তাদের জন্য জিহাদ শব্দের অর্থ কি এটা জানা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ইসলামিক পারিভাষিক অর্থে জিহাদ শব্দটি ব্যবহার করা হয়ে থাকে। যার কারণে জিহাদ নামের অর্থ কি এই নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন করে থাকেন। 

জিহাদ আরবি শব্দটিকে প্রায়শই “পবিত্র যুদ্ধ” হিসাবে অনুবাদ করা হয় তবে এর প্রকৃত অর্থ হল “পবিত্র সংগ্রাম”।

ধর্মীয় অর্থে, কোরান এবং নবী মোহাম্মদ (ﷺ) শিক্ষা দ্বারা বর্ণিত, জিহাদ মানে সম্প্রদায়ের উপকারের জন্য প্রচেষ্টা করা বা ব্যক্তিগত পাপের সংযম। এটি একজন ভাল মুসলিম বা ঈমানদার হওয়ার জন্য অভ্যন্তরীণ এবং বাহ্যিক প্রচেষ্টাকে উল্লেখ করতে পারে। এটি প্রাথমিকভাবে নিজেকে উন্নত করার প্রচেষ্টা বোঝায়।

যদি অন্যদের বিরুদ্ধে ঈমান রক্ষার জন্য জিহাদের প্রয়োজন হয়, তাহলে শান্তিপূর্ণ উপায় ব্যবহার করা উচিত। ইসলাম শক্তি প্রয়োগের অনুমতি দেয় তবে শুধুমাত্র আত্মরক্ষার ক্ষেত্রে এবং অ-যোদ্ধাদের বিরুদ্ধে নয়।

জিহাদ শব্দের  অর্থ কি 

জিহাদ শব্দের অর্থ হচ্ছে সংগ্রাম। ইসলামের দৃষ্টিতে সংগ্রামকে জিহাদের সাথে তুলনা করা হয়ে থাকে। তাছাড়া জিহাদ শব্দের আভিধানিক অর্থ পরিশ্রম এবং সাধনা কেউ বোঝানো হয়ে থাকে। মুসলমানদের পবিত্র ধর্ম আল-কুরআনের জিহাদ মুসলমানদের জন্য কর্তব্য হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। সেখানে যুদ্ধ শব্দটি ব্যবহার না করে জিহাদ শব্দটি ব্যবহার করা হয়েছে। ব্যাপক চেষ্টা, সংগ্রাম ও শক্তি প্রয়োগের সমষ্টিগত নামকে জিহাদ বলা হয়ে থাকে। 

আভিধানিক অর্থে জিহাদ হলো পরিশ্রম,সাধনা,কষ্ট, চেষ্টা ইত্যাদি। আক্ষরিক ভাবে জিহাদ শব্দটির অর্থ হলো কোনো বিষয়ে সংগ্রাম করা। এই সংগ্রাম সশস্ত্র বা অহিংস, ধর্মীয় বা ধর্মনিরপেক্ষ, সব রকমেরই হতে পারে। যেমন, মহাত্মা গান্ধীর সত্যাগ্রহ আন্দোলনকে আরবি ভাষায় জিহাদ বলেই অভিহিত করা হয়। একইভাবে নারীমুক্তির আন্দোলনকেও আরবি ভাষার বিভিন্ন প্রকাশনায় জিহাদ বলা হয়।

জিহাদ শব্দের আভিধানিক ব্যবহার

আরবের বাইরে জিহাদ শব্দটি বর্তমানে সশস্ত্র ও নিরস্ত্র সংগ্রাম – দুই রকমেরই অর্থে বর্তমানে ব্যবহৃত হয়। এটি ন্যায়নিষ্ঠ জীবনযাপন করে ইসলাম ধর্ম পালন এবং অন্যায় ও অত্যাচারের বিরুদ্ধে সংগ্রাম বোঝায়। জিহাদের দুই রকমের অর্থ্য করা একটি বিতর্কিত বিষয়। গ্যালাপ পরিচালিত একটি জরিপে দেখা গেছে, ইন্দোনেশিয়ার অধিকাংশ ব্যক্তি এই শব্দটির অর্থত “ইসলামের ও ন্যায়ের জন্য জীবন বিসর্জন করা”, অথবা “ইসলামের শত্রুদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করা” বলে মনে করেন। লেবানন, কুয়েত, জর্ডান ও মরক্কোতে অধিকাংশ ব্যক্তি এই শব্দটি দিয়ে স্রষ্টার প্রতি কর্তব্য, বা উপাসনা বোঝেন, এবং শব্দটির সাথে কোনোরকম সশস্ত্র সংগ্রামকে জড়ান না। অন্যান্য দেশের লোকদের মতে পাওয়া গেছে,:

  • “কঠিন পরিশ্রম করা” ও “জীবনের লক্ষ্যে পৌছানোর জন্য কাজ করা”
  • “ন্যায়ের জন্য সংগ্রাম করা”
  • “শান্তি, সমৃদ্ধি ইত্যাদির জন্য কাজ করা”
  • “ইসলামের নীতি মেনে চলা”

জিহাদ শব্দের আরবি অর্থ কি

আরবী ভাষামতে জিহাদের মানে হল সংগ্রাম (Struggle)। মুসলিম পণ্ডিতগণ জিহাদকে এভাবে শ্রেণীভুক্ত (Classify) করেছেনঃ

  1. জিহাদ-আন-নাফস, অর্থাৎ নিজের আত্মার সঙ্গে সংগ্রাম করা;
  2. জিহাদ-আশ-শায়তান, অর্থাৎ শয়তানের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করা;
  3. জিহাদ-আল-কুফ্‌ফর, অর্থাৎ অবিশ্বাসীদের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করা;
  4. জিহাদ-আল-মুনাফিকুন, অর্থাৎ মুনাফেকদের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করা;
  5. জিহাদ-আল-ফাসিকুউন, অর্থাৎ খারাপ মুসলিমদের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করা।

জিহাদ শব্দের বাংলা অর্থ কি 

জিহাদ মানে হচ্ছে না এর সাথে সংগ্রাম করা। অর্থাৎ অন্যায়ের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে যাওয়া। জিহাদ শব্দের বাংলা অর্থ হচ্ছে সংগ্রাম। ইসলামের জন্য যুদ্ধ করাকেই সাধারণত জিহাদ বলা হয়ে থাকে। নারীমুক্তির আন্দোলনকেও আরবি ভাষার পরিপ্রেক্ষিতে জিহাদ বলা হয়ে থাকে। জিহাদদ শব্দটি ইসলামিক দৃষ্টিতে গুরুত্বপূর্ণ একটি শব্দ।জিহাদ মানে হচ্ছে শান্তি এবং সংগ্রামের উদ্দেশ্যে যুদ্ধ করে যাওয়া। ইসলামের নীতি মেনে চলে সংগ্রাম করা কেউ জিহাদ বলা হয়ে থাকে। 

Meaning of jihad in English

jihad —

  • an often violent effort by some Muslim people to defend their religion against those who they believe want to destroy it
  • in Islam, a religious struggle against evil in yourself or in society
  • a holy war fought by Muslims against people who are a threat to Islam

জিহাদ শব্দটির তাৎপর্য 

সমগ্র মানবজাতির সমাজ ব্যবস্থার আমূল পরিবর্তন সাধন করে ইসলামের নিজস্ব মতাদর্শ অনুসারে লক্ষ্যে শ্রেষ্ঠ ও সংগ্রাম করাকেই জিহাদের সাথে তুলনা করা হয়ে থাকে। যারা মুসলমান তাদের জন্য জিহাদ শব্দটির গুরুত্ব অনস্বীকার্য। 

সমাজের অন্যায়ের বিরুদ্ধে সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়া কেউ যাদের সাথে তুলনা করা হয়। জিহাদের মাধ্যমে মুসলিম সমাজে শান্তি প্রতিষ্ঠা করাই হচ্ছে এর মূল লক্ষ্য। যারা মুসলিম তাদের জন্য জিহাদ শব্দটির তাৎপর্য অপরিসীম।একজন মুসলিম হয়ে যদি আপনি জন্মগ্রহণ করেন তাহলে অবশ্যই জিহাদকে বিশ্বাস করাটা আপনার জন্য খুবই জরুরী। 

তাহলে অবশ্যই বুঝতে পারছেন যে জিহাদ শব্দটি ইসলামী শরীয়তে ঠিক কতটা গুরুত্বপূর্ণ।মুসলিম সমাজের শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য জিহাদের ভূমিকা অনস্বীকার্য। আর এই কারনেই জিহাদকে নেয় প্রতিষ্ঠান সংগ্রাম হিসাবে তুলনা করা হয়ে থাকে।আশাকরি জিহাদ শব্দের অর্থ কি এই সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা পেয়ে গিয়েছেন। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eighteen − four =