ওএসআই (osi ) মডেলে মোট সাত (৭) টি লেয়ার থাকে।

লেয়ারগুলো হল:

  • অ্যাপ্লিকেশন লেয়ার: এই লেয়ার ব্যবহারকারীদের জন্য অ্যাপ্লিকেশন প্রোগ্রামগুলোর সাথে যোগাযোগ করে।
  • প্রেজেন্টেশন লেয়ার: এই লেয়ার ডেটা কে উপস্থাপনার জন্য প্রয়োজনীয় ফর্ম্যাটিং এবং এনক্রিপশন/ডিক্রিপশন পরিচালনা করে।
  • সেশন লেয়ার: এই লেয়ার দুটি ডিভাইসের মধ্যে যোগাযোগের জন্য একটি সেশন স্থাপন করে এবং পরিচালনা করে।
  • ট্রান্সপোর্ট লেয়ার: এই লেয়ার ডেটা ট্রান্সমিশনের জন্য নির্ভরযোগ্যতা এবং ত্রুটি নিয়ন্ত্রণ প্রদান করে।
  • নেটওয়ার্ক লেয়ার: এই লেয়ার ডেটা প্যাকেটগুলোকে সঠিক গন্তব্যে রাউট করে।
  • ডেটা লিংক লেয়ার: এই লেয়ার শারীরিক নেটওয়ার্কে ডেটা ট্রান্সমিশন করে এবং ত্রুটি নিয়ন্ত্রণ প্রদান করে।
  • ফিজিক্যাল লেয়ার: এই লেয়ার বৈদ্যুতিক সংকেত বা আলোর পালসের মাধ্যমে ডেটা বাইটগুলোকে শারীরিকভাবে প্রেরণ করে এবং গ্রহণ করে।

লেয়ারগুলোকে তিনটি ভাগে ভাগ করা যায়:

  • সফটওয়্যার লেয়ার: অ্যাপ্লিকেশন, প্রেজেন্টেশন, সেশন এবং ট্রান্সপোর্ট লেয়ার হল সফটওয়্যার লেয়ার।
  • কোর লেয়ার: নেটওয়ার্ক এবং ডেটা লিংক লেয়ার হল কোর লেয়ার।
  • হার্ডওয়্যার লেয়ার: ফিজিক্যাল লেয়ার হল হার্ডওয়্যার লেয়ার।

লেয়ারগুলো একের পর এক কাজ করে, ডেটা অ্যাপ্লিকেশন থেকে শারীরিক মিডিয়ায় প্রেরণ করে এবং তারপর আবার ফিরে আসে।

OSI মডেল কম্পিউটার নেটওয়ার্কিংয়ের একটি ধারণাগত মডেল যা ডেটা কীভাবে একটি ডিভাইস থেকে অন্য ডিভাইসে প্রেরিত হয় তা ব্যাখ্যা করে। এটি নেটওয়ার্কিং ডিভাইস এবং প্রোটোকল নকশা, বাস্তবায়ন এবং পরিচালনায় ব্যবহৃত হয়।